সিনেমা

ছবির প্রচারে যাদবপুরের মিলনদার ক্যান্টিনে পরমব্রত, ‘ঢপের চপ’ হাতে নিয়েই পরমের বৌদি ক্যান্টিনের প্রমোশন শুরু

পুজোতেই আসছে ‘বৌদি ক্যান্টিন’ ৷ শুক্রবার ৩০ অক্টোবর মুক্তি পাচ্ছে এই ছবিটি‌। ইতিমধ্যেই লঞ্চ হয়ে গিয়েছে এই ছবির ট্রেলার ৷ পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের পরিচালনায় এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীকে। সোহমকে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রীর রান্নায় সহযোগীর ভূমিকায়। শাশুড়ির চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনুসূয়া মজুমদার।

আর এই ছবির প্রমোশনের জন্যই ফুডস্পা-র সঙ্গে পরমব্রত হাজির হয়েছিলেন যাদবপুরের মিলদার ক্যান্টিনে। ‘ঢপের চপ’ আর যাদবপুরের এই ক্যান্টিন যেন একে অপরের পরিপূরক। শুধু পড়ুয়াদের কাছে নয়, আট থেকে সকলের কাছেই সমান জনপ্রিয় এই মিলনদার ক্যান্টিনের ঢপের চপ। এদিকে আবার পরমব্রত প্রাক্তনী যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের।

এদিকে, মিলনদা গত হওয়ার পর তার স্ত্রী চালাচ্ছেন এই ক্যান্টিন। পরমব্রত কথায়, দশকের পর দশক ধরে স্বাদের দিক থেকে একই আছে ঢপের চপ। তাই, পুরনো স্মৃতি উস্কে বউদির ক্যান্টিনকেই ছবির প্রমোশনের জন্য বেছে নিলেন‌। ডায়েট ভুলে চেখে দেখলেন ফ্রায়েড রাইস, ডিমের চপ, চিকেন পকোড়া। পরমব্রতর কথায়, “যাদবপুরের ছাত্রছাত্রীদের কাছে আড্ডা মারার জায়গা মিলনদার ক্যান্টিন। ছাত্রাবস্থায় পকেটে খুব কম টাকা নিয়ে ক্যান্টিনে আসতাম। আর মিলনদা এত ভালো ছিলেন যে কখনও টাকা দিতে না পারলেও কিছু বলতেন না।”

বিখ্যাত শেফ, কলকাতার মেয়ে আসমা খানের জীবন অবলম্বনেই এই সিনেমা।মেয়েরাই যে মেয়েদের আবেগ, ইচ্ছা, গুণের কদর করে না তাই তুলে ধরা হয়েছে এই ছবিতে। দৈনন্দিন অভ্যেসের একঘেয়ে হেঁশেল নয়, খুন্তি হাতে নিয়েও সাফল্য আসে, পৌলমী তা দেখিয়ে দিয়েছেন চোখে আঙুল দিয়ে। পারিবারিক গল্পের মোড়কে তৈরি হয়েছে এই ছবি।

Related Articles

Back to top button