বিনোদন

৪ বছরেই ভাঙছে রণবীর-দীপিকার বিয়ে, রনবীর দীপিকার নাকি বিয়ে ভাঙছে! বলিউডের কানা ঘুষে চলছে এর চর্চা, ব্যাপারটা কি সত্যি? নাকি শুধুই গুঞ্জন?

দীপিকা আর পাড়ুকোন এবং রানবির সিং দুজনেই বলিউডের জনপ্রিয় দুই কলাকুশলী। শুধু নিজের অভিনয়ের জন্য নয় তাঁদের নাম রয়েছে ব্যক্তিগত সম্পর্কের জন্যও। বলিউডের পাওয়ার কপোল হিসেবে যে কজন জুটির নাম করা যায় তাঁদের মধ্যে রণবীর আর দীপিকা একজন। একে অপরের প্রতি ভালোবাসা দেখাতে তাঁরা কখনো ভোলেন না। সম্প্রতি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড এ নিজেদের ভালোবাসা সকলের সামনে আবারো প্রকাশ করেছিলেন এই দুই অভিনেতা অভিনেত্রী। তাতেই মুগ্ধ তাঁদের অনুরাগীরা। এরই মধ্যে শোনা গেল দীপিকা আর রাণবীরের নাকি সম্পর্কের ভাঙ্গন ঘটছে। আবার এমনটাও শোনা গেছিল যে দীপিকার শারীরিক অসুস্থতা এই ভাঙ্গনের মূল কারণ। কিন্তু অভিনেতা রণবীর জানিয়েছেন এ সম্পূর্ণ বিষয়টি শুধুমাত্র একটি গুঞ্জন। এমন কিছুই ঘটেনি।

এরকম একটি গুঞ্জন এর মূল কারণ সোশ্যাল মিডিয়া। সেখানে এক ব্যক্তি দাবি করেছিলেন যে দীপিকার সাথে নাকি রাণবীরের সম্পর্কের অবনতি ঘটেছে। আর তারপরে এই মন্তব্যটি ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। তথ্যের অপপ্রচার হতে হতে ঘটনা ঘটেছে। আর এতটাই অপপ্রচার হতে থাকে যে ঘটনাটি দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে। আরো আরেকজন বলেছেন স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে ঘটনাটি নাকি ডিভোর্স পর্যন্ত গিয়েছে। তবে ডিবির ফ্যানরা এসব কোন কিছু কি পাত্তা দিচ্ছেন না। কারণ তাঁরা জানেন এই জুটির বন্ধন ঠিক কতটা দৃঢ়।

এ সমস্ত গুঞ্জন শোনার পরেও রণবীর বলেন এ সম্পূর্ণটাই তাঁর বিরুদ্ধে করা কিছু অপপ্রচার। এক অ্যাওয়ার্ড সেরেমনিতে অংশ নেওয়ার সময় তাঁকে প্রশ্ন করা হয় ব্যাপারটি নিয়ে। সে সময় রণবীর বলেন, “২০১২ সালে আমাদের মোলাকাত হয়েছিল। এরপরেই আমরা পরস্পরকে ডেট করতে আরম্ভ করি। ১০ বছর কেটে গিয়েছে। ২০২২ সালে দাঁড়িয়ে আছি আমরা। দীপিকা এবং আমি আজও একে অপরকে শ্রদ্ধা করি। পরস্পরকে ভালোবাসি। আমি ওঁর থেকে অনেক কিছু শিখেছি।”

অভিনেতা কথাগুলো এতই দৃঢ়তার সাথে বলেছেন যে অভিনেতার অভিব্যক্তিতে স্পষ্ট যে তাঁদের দুজনের সম্পর্ক ঠিক কতটা মজবুত। শেষবারের জন্য এই তারকা জুটিকে একসাথে দেখতে পাওয়া গিয়েছিল ৮৩ মুভিতে। তবে অভিনেতা এবং অভিনেত্রী দুজনেই মন থেকে একে অপরের সাথে কাজ করতে চান একথা তার আগেও বহুবার বলেছেন। শোনা গিয়েছিল ব্রহ্মাস্ত্র ছবির জন্যেও একসাথে কাজ করেছেন তাঁরা। যদিও অভিনেতা এবং অভিনেত্রীর পক্ষ থেকে এখনো এ বিষয়ে কিছু কনফরমেশন পাওয়া যায়নি।

Related Articles

Back to top button