সিরিয়াল

ইন্ডিয়ান আইডল ১৩ তে জয়জয়কার বাংলার। টপ ১৫ তে সঞ্চারী প্রীতম বিদিপ্তা সহ ৭ জন, ট্রফি কি তাহলে এখানেই আসছে?

নতুন প্রতিভাদের আত্ম বিকাশের মঞ্চ ইন্ডিয়ান আইডল। প্রত্যেক বছর এই গানের রিয়েলিটি শো জন্ম দেয় নতুন নতুন গায়ক -গায়িকাদের। ইন্ডিয়ান আইডিলের ১৩ তম সিজন এখন চলছে। এখন এই রিয়েলিটি শোটির সেরা ১৫ গাইয়ে নির্বাচন হয়ে গেছে। এই ১৫ জন সেরা গায়ক গায়িকাদের মধ্যে বিশেষভাবে স্থান করে নিয়েছেন বাংলার ছেলে -মেয়েরা। জেনে নেব বাংলার কোন কোন প্রতিযোগীরা জায়গা করে নিল টপ ১৫ তে:

বিদীপ্তা চক্রবর্তী: এবারের ইন্ডিয়ান আইডলে অন্যতম উল্লেখযোগ্য একজন প্রতিযোগী বিদিপ্তা। এর আগে বাংলার সারেগামাপা রিয়েলিটি শো এ ফাইনানের প্রতিযোগীও ছিলেন তিনি। সোদপুরের বাসিন্দা বিদিপ্তাকে ঘিরে আশায় বুক বাঁধছেন বাংলার দর্শক।

সেঁজুতি দাস: হাওড়ার বেলুড়ের বাসিন্দা সেঁজুতি।বলিউড ক্লাসিক্যাল আর সেমি ক্লাসিক্যাল ঘরনার গান গেয়ে বারবার বিচারকদের মুগ্ধ করেছেন তিনি। অনুরাগীরা নেহা কক্কর এর সাথেও তার তুলনা করতে পিছপা হননা।

সোনাক্ষী কর: এবারের ইন্ডিয়ান আইডলে অন্যতম আলোচিত প্রতিযোগী সোনাক্ষী। অডিশন রাউন্ডে লতা মঙ্গেশকরের বিখ্যাত গান ” রাহেনা রাহে হাম” শুনিয়ে মন জয় করে নিয়েছিলেন বিচারকদের। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে ইন্ডিয়ান আইডল জুনিয়রেও অংশগ্রহণ করেছিলেন সোনাক্ষী।

সঞ্চারী সেনগুপ্ত: সুপার সিঙ্গার বিজয়ী সঞ্চারী, এবার বাংলার অন্যতম তুরুপের তাস। ইতিমধ্যে বাংলা ছবি বাবা বেবি ও’ তে প্লেব্যাকও করে ফেলেছেন তিনি। সঞ্চারীকে নিয়েও রীতিমতো আশাবাদী বাংলার দর্শকরা।

অনুষ্কা পাত্র: নিউ আলিপুর এর বাসিন্দা, অনুষ্কা ২০১৯ এর সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস এর ফাইনালিস্ট ছিলেন। তার গানের সুরে রীতিমত মুগ্ধ বিচারক বিশাল দাদলানি।

দেবিস্মিতা রায়: দেবস্মিতার গান চোখ ভিজিয়েছিল বিচারক হিমেশের। তার গাওয়া “রোজ রোজ অঙ্খো তালে” রীতিমতো ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। জাতীয় মঞ্চে এই বঙ্গকন্যার পারফরমেন্স বুক ফুলিয়েছে বাংলার।

প্রীতম রায়: ইন্ডিয়ান আইডলের অন্যতম একজন প্রতিযোগী প্রীতম।১৭ হাজার ফলোয়ার্স নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তার বেশ প্রভাব। রাজ্য সংগীত একাডেমী থেকে তালিম নেওয়া প্রীতমের উপর ভরসা করছেন অনেক বাঙালি শ্রোতা।

Related Articles

Back to top button