গসিপ

ইয়ার্কি করে বলেছিলেন,”ঐন্দ্রিলা আসার পর থেকে শনির দশা চলছে।” শোনার পর নেটিজেনরা বললেন,”মজা করে সত্যি কথাটা বলে দিলেন!”

ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির শিল্পীদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমরা চর্চা করতে বরাবরই ভালোবাসি। যতই তারা সেলিব্রেটি হোক, তাদেরও যে ব্যক্তিগত জীবনে ভালোলাগা, খারাপ লাগা আছে তা অনেক সময় আমরা ভুলে যাই। তাই তাদের জীবনের সেই দিক গুলো সামনে আসলে আমরা তৈরি করে ফেলি মুখরোচক গসিপ।

সাম্প্রতিককালে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে জনপ্রিয় নায়ক হলেন অঙ্কুশ। তার গার্লফ্রেন্ড ঐন্দ্রিলাও এখন পরিচিত মুখ সিনে দুনিয়ায়। এই দুই সেলিব্রিটিকে নিয়ে চর্চার শেষ নেই সোশ্যাল দুনিয়ায়। প্রায় দশ বছর হয়ে গেল তাদের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু এতদিন হয়ে গেলেও তারা কেন বিয়ে করেননি সেই নিয়ে রীতিমতো কৌতুহল রয়েছে তাদের অনুরাগীদের। এতদিন হয়ে গেলেও তাদের প্রেমের সম্পর্ক এখনও রীতিমত চর্চার বিষয় সিনে প্রেমীদের কাছে। নেট মাধ্যমে সম্প্রতি অঙ্কুশ ও ঐন্দ্রিলার একটি পুরনো ভিডিও ফের সামনে এসেছে। কিভাবে তারা একে অপরের প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হন তা এই ভিডিওে বলেছেন অঙ্কুশ। অঙ্কুশ যেহেতু প্রচন্ড হাসি ঠাট্টা পছন্দ করেন, সেহেতু নিজেদের প্রেম সম্পর্কে বলতে গিয়ে মজার ছলে কয়েকটি কথা বলেছেন এই ভিডিওতে।

ভিডিওতে অঙ্কুশ বলেন, ২০১১ সালে দুর্ভাগ্যবশত এক মহিলা তার জীবনে আসেন। এতদিন হয়ে গেলেও তার থেকে তিনি মুক্তি পাননি। ঠিক তখনই মজার ছলে ঐন্দ্রিলা বলেন, ওর শনির দশা চলছে! অঙ্কুশ নাকি ঐন্দ্রিলাকে তার জীবন থেকে সরানোর অনেক চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু বারবার ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। এরপর ঐন্দ্রিলা নিজেই বলে ওঠেন সেই মেয়েটি হলেন তিনি নিজেই।

একে অপরের সাথে নানান কটাক্ষ পূর্ণ কথা বললেও সবশেষে অঙ্কুশ ঐন্দ্রিলাকে জড়িয়ে ধরে চুমু খান। কিন্তু এই ভিডিওর কথাবার্তা গুলি নিয়ে ফের একবার চর্চা শুরু হয়েছে নেট দুনিয়ায়। অনেকেই মজা করে বলেছেন, হাসির ছলে সত্যি কথাটা বলে দিলেন দাদাভাই। এছাড়াও অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী এই জুটিকে আগামী দিনের জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন।কেউকেউ লিখেছেন ভাঙ্গা গড়ার যুগে দশটা বছর একসাথে কাটানো অনেকটা বড় ব্যাপার।

Related Articles

Back to top button