গসিপ

বলিউডের সুপুরুষ অভিনেতারা একসময় রাতের ঘুম কেড়েছেন গোটা দেশের মেয়েদের! কিন্তু কখনো ভেবেছেন কি যে এই সুপুরুষ অভিনেতারাই যদি সুন্দরী কন্যা হতেন তাহলে ঠিক এরকম দেখতে হত তাঁদের? চলুন আজকে দেখে নেওয়া যাক

বলিউডের পুরনো থেকে বর্তমান সবেতেই বড় বড় তাবড় তাবড় অভিনেতারা আছেন যাঁরা সুন্দর, সুঠাম, সুপুরুষ। বরাবরই তাঁরা তাঁদের মহিলা অনুরাগীদের রাতের ঘুম উড়িয়ে এসছেন। ধর্মেন্দ্র থেকে শুরু করে ঋষি কাপুর। শাহরুখ খান থেকে শুরু করে জন আব্রাহাম কেউই কারো থেকে কম যান না। অভিনেতা হিসেবে তৎকালীন অভিনেতাদের ভালই টক্কর দিয়ে এসেছেন। এখনো দিচ্ছেন। এমনকি মহিলা অনুরাগীদের পাগল করেছেন নিজেদের রূপের যাদুতে। কিন্তু কখনো কি ভেবেছেন এই বড় বড় অভিনেতা যদি মেয়ে হতেন তাহলে ঠিক কেমন দেখতে হতো না! চলুন তাহলে দেখে নিই এই অভিনেতার যদি মেয়ে হতেন তাহলে কি বড় বড় মডেল এবং অভিনেত্রীদের টিকা দিতে পারতেন কিনা।

অমিতাভ বচ্চন : অভিনেতা কে শুধুমাত্র মেয়েদের চুল দিয়ে দেওয়াতে একেবারে রূপবতী কন্যার মতো দেখতে লাগছে। আসলে তিনি যদি মহিলা হতেন তাহলে নিজের মেয়ে শ্বেতার মতোই দেখতে হতেন। এর থেকে এই টুকু স্পষ্ট যে মেতে শ্বেতা একদম বাবার মুখ পেয়েছে।

অনিল কাপুর : বলিউডের এই হ্যান্ডসাম নিজের রূপের জাদুতে বেশ ভালই নজর কেড়েছিলেন মহিলা অনুরাগীদের। অভিনেতা যদি আসলে মেয়ে হতেন তাহলে সে তাঁর নিজের মেয়ে সোনাম কাপুরকে টেক্কা দেওয়ার মতো সৌন্দর্যের অধিকারী হতেন।

জন আব্রাহাম : বর্তমানের বলিউডের একজন জনপ্রিয় অভিনেতা জন আব্রাহাম। শুধুমাত্র মেয়েলি চুল যোগ করে দেওয়াতেই আলাদাই রূপ পেয়েছেন অভিনেতা। অভিনেতাকে একেবারে বলিউডের অভিনেত্রী বিপাশা বসুর মতো দেখতে লাগছে। অভিনেতার নারী রূপ দেখলে হঠাৎ করে দেখলে বোঝা যাবে না যে তিনি বিপাশা বসু না জন আব্রাহাম।

দিলীপ কুমার : বলিউডের একসময় জনপ্রিয় অভিনেতা দিলীপ কুমার। প্রচুর মেয়ের মনের রাজা হয়ে বসে ছিলেন তিনি। অভিনেতা যেমন নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে মুগ্ধ করেছেন সকলকে। ঠিক তেমনি মেয়ে হয়ে জন্মালে নিজের রূপেও মুগ্ধ করতেন গোটা দেশকে।

ধর্মেন্দ্র : বলিউডের এই হ্যান্ডসাম নিজের অভিনয়ের মাধ্যমে নাম করেছেন গোটা দেশে। প্রচুর মেয়ে পাগল হয়ে থাকতেন তাঁর রূপের যাদুতে। তবে মেয়ে হলেও তাঁর রূপের জাদু এই ভাবেই ছড়িয়ে পড়তো।

ববি দেওল : এই অভিনেতা নিজের অভিনয় দক্ষতায় জায়গা করে নিয়েছেন দর্শকের মনে। বর্তমানে যুব প্রজন্মের মনে ও বেশ ভালই জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। বেশ কিছুটা প্রীতি জিন্টার মতো দেখতে লাগছে তাঁকে। নিজের অভিনয়ের মতোই জনপ্রিয়তা পেতেন যদি তিনি একটা মেয়ে হতেন।

সানি দেওল: ববি দেওলের দাদা সানি দেওল। ভাইয়ের থেকে অনেক বেশি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন তিনি কর্মজীবনে। দুই ভাইয়ের মুখের আদলে প্রীতিজিনটার সাথে বেশ মিল পাওয়া যায়।

মিঠুন চক্রবর্তী : মিঠুন চক্রবর্তী ঠিক যতটা নিজের কাজের জন্য প্রশংসিত ঠিক ততটাই প্রশংসিত হতে যদি তিনি মেয়ে হতেন। মেয়ে রূপে আমাদের দাদাকে কি মিষ্টি দেখতে লাগছে। মেয়ে হলে তাঁর রূপের জাদুতে কাবু হতো তাবড় তাবড় অভিনেত্রীরাও।

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী : নওয়াজের চরিত্রের দৃঢ়তা দেখলে যে কেউ তাঁর ফ্যান হয়ে যেতে পারে। গোটা একটা সিরিজে অভিনেতা নিজেই মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এছাড়াও মেয়ের রূপে কি অদ্ভুত সুন্দর দেখতে লাগে অভিনেতাকে।

রাজেশ খান্না : বলিউডের প্রথম জনপ্রিয় অভিনেতা তিনি। নিজের রূপে মুগ্ধ করেছিলেন তাঁর মহিলা অনুরাগীদের কে। কিন্তু পুরুষ না হয়ে মেয়ে হলেও ঠিক ততটাই জনপ্রিয়তা অর্জন করতেন তিনি।

ঋষি কাপুর : অভিনেতার ছবি হঠাৎ করে দেখলেই মনে হবে কারিনা কাপুর। অভিনেতা হিসেবে ও নিজের মিষ্টত্ব ছড়িয়ে দিয়েছিলেন তাঁর মহিলা অনুরাগীদের মধ্যে। আবার যদি মেয়ে হতেন তাহলে তো তাঁর জনপ্রিয়তার কোন কথাই ছিল না।

সালমান খান : সালমান খান ছাড়া ভাবাই যায় না বলিউড কে। নিজের অভিনয় দক্ষতায় এখনো রাজ করছেন দর্শকদের মনে। মেয়ে হলে হয়তো আরো অনেক বেশি পুরো শোনার আগেদের মনে জায়গা করে নিতেন তিনি।

শাহরুখ খান : কিং খানের কথা আলাদা করে বলার কিছু নেই। তাঁর ফ্যান বেসটি কত টাকা আমরা সকলেই জানি। মেয়ে হলে তাঁর জনপ্রিয়তা যেন আরো শীর্ষে পৌঁছত। তাঁকে এতটাই দেখতে সুন্দর লাগছে।

Related Articles

Back to top button