গসিপ

ক্যাটরিনার থেকে চ্যালেঞ্জ বেশি ছিল রুবিনার! জ্বর ও ঋতুস্রাবের কষ্ট নিয়েই ‘টিপ টিপ বরসা পানি’র শুটিং রবিনার!

পর্দার জগৎ আর বাস্তবের জগতে আকাশ-পাতাল ফারাক। পদার নায়ক-নায়িকারা অনেক সময় আমাদের সামনে যা তুলে ধরেন , তা করতে রীতিমত তাদের অনেক কষ্ট করতে হয়, আমরা শুধু একটি পারফেক্ট শট দেখি, কিন্তু সেই পারফেক্ট শটটি দেওয়ার জন্য অনেকবার চেষ্টা করতে হয়। একটি শট ঠিকঠাক করবার জন্য বারেবারে টেক দিতে হয়। এখন যদি কারো শরীর অসুস্থ থাকে, অথবা বর্ষার মধ্যে বা তীব্র শীতের মধ্যে তাকে শ্যুটটি করতে হয় তাহলে স্বাভাবিকভাবেই সমস্যা হওয়ার কথা।

আরও পড়ুন: কিং খানের অনুকরণ করলেন ভাইজান! শাহরুখের পর এবার লম্বা চুলের লুকে সালমানের নতুন ছবি

রুপোলি পর্দার নায়ক নায়িকাদের কাজটা এমনই যে তাদের শারীরিক অসুস্থতা, রোগ-যন্ত্রণা সবকিছু লুকিয়ে পর্দার সামনে হাসিমুখে হাজির হতে হয়। আমরা সবাই বাইরে থেকে দেখি ছবিটা খুব সুন্দর, কিন্তু সেই ছবিটিকে সুন্দর করা অভিনেতা অথবা অভিনেত্রীটি হয়তো খুব শারীরিক যন্ত্রণা এবং কষ্টের মধ্যেও সেই কাজটি ফুটিয়ে তোলেন সেটা আমরা সব সময় জানতে পারি না। বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রবিনা টন্ডনের কথাই ধরা যাক। তার জীবনের সবথেকে হিট একটি কাজ হল ‘টিপ টিপ বরসা পানি’। মোহরা ছবির এই‌ গানে হলুদ শাড়িতে দেখা গিয়েছিলে রুবিনাকে। নয়ের দশকের হিট এই গান বহু পুরুষের হৃদয়ে হিল্লোল তুলে দিয়েছিল।

অক্ষয় কুমারের সাথে রোমান্টিক নাচ নেচে রীতিমত ঝড় তুলে দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। রাতারাতি তিনি হয়ে গিয়েছিলেন বিখ্যাত। অথচ এই নাচটি নাচবার জন্য তাকে অনেক কষ্ট স্বীকার করতে হয়েছে তা অনেকেই জানেন না। এই নাচটির যখন শুটিং হয় তখন তার ঋতুস্রাব হয়েছিল। এমনকি সেই সময় তার গায়ে জ্বর‌ও ছিল। ঋতুস্রাবের যন্ত্রণা, গায়ে জ্বর কোন কিছুকে তোয়াক্কা না করে শুটিং করেছিলেন অভিনেত্রী। মেয়েদের ঋতুমতী অবস্থায় বৃষ্টিতে ভিজে কাজ করা এমনিতেই খুব দুষ্কর, সেই দুষ্কর কাজটিই করেছিলেন অভিনেত্রী। ঋতুস্রাবের কষ্ট, জ্বরের জন্য শরীরের কষ্ট সবকিছুর মধ্যেই বৃষ্টিতে ভিজে তাকে বারেবারে টেক দিতে হচ্ছিলো। অভিনেত্রী নিজেই জানিয়েছিলেন যে সেই সময় বৃষ্টিতে ভিজে কাজ করা তার পক্ষে কতটা কঠিন ছিল, এই কঠিন কাজটি করতে পেরেছিলেন বলেই হয়তো আজ‌ও সকলের মুখে মুখে ঘরে ‘টিপ টিপ বরসা পানি!’

আরও পড়ুন: স্বামী পরকীয়ায় আসক্ত জেনে নিজেও অন্য সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন মুমতাজ! কী হয়েছিল সেই সম্পর্কের পরিণতি?

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য দীর্ঘ ২৭ বছর পর সম্প্রতি সূর্যবংশম ছবিতে এই গানটির রিমেক করা হয়, যেখানে অক্ষয় থাকলেও রুবিনার জায়গায় নজর কেড়েছিলেন ক্যাটরিনা। স্বাভাবিকভাবেই একই গানে দুই নায়িকাকে কাজ করতে দেখে তুলনা শুরু হয়ে যায়। তবে তুলনা করাটা উচিত নয় কারণ সময়ের ফারাকে অনেক কিছুই বদলে যায়। সময়ের এই ফারাক প্রসঙ্গে রবিনা জানান, তাদের সময় মেয়েদের উরু থেকে চেহারা একটু স্থূলকায় হলেই বলা হত‘khatepite Ghar ki Ladki’। তাদের সময়কার করিশ্মা, শিল্পা এবং তাকে সকলকেইই এই সমস্ত কথা শুনতে হয়েছে। তবে এখন সময়ের অনেক পরিবর্তন হয়েছে এখন বলিউডের নায়িকাদের বয়স নিয়ে সেভাবে ছুৎমার্গ নেই। আবার শুটিংয়ের সময় এই সমস্ত প্রতিকূলতার কথা শুনলে বোঝা যায় ক্যাটরিনা থেকে রাবিনার চ্যালেঞ্জ অনেক বেশি ছিল।

Related Articles

Back to top button